প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালকের কলম থেকেঃ

সম্মানিত অভিভাবকবৃন্দ

আসসালমুআলাইকুম। শিবরাম স্মুতি প্রি-ক্যাডেট স্কুল অ্যান্ড কলেজে-এর পক্ষ থেকে আপনাদের সবেইকে জানাই আন্তরিক অভিনন্দন। শিক্ষা একটি মূল্যবান সম্পদ। সু-শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। শিক্ষা মানুষের জ্ঞানের জগতকে উন্মুক্ত করে। জ্ঞান মানুষের জীবনে হিরন্ময় দ্যূতিতে ভাস্বর এক অনন্য মানবীয় গুণ। জ্ঞান আছে বলেই মানুষ স্রষ্টার সেরা জীব। জীবনের অভিজ্ঞতা থেকে মানুষের জ্ঞানের উন্মেষ ঘটে। জ্ঞান পরশমনি স্বরুপ।

   জ্ঞানের পরশে মানুষ তাঁর জীবনের উত্তরণ ঘটাতে সক্ণম হয়। নীতি বিষয়ক শিক্ষাকে বলা হয় নৈতিক শিক্ষা। আর নৈতিক শিক্ষার উদ্দেশ্য-জীবনকে কোনো আদর্শের লক্ষ্যে পরিচালিত করা। মানুষের চরিত্রের উৎকর্ষ সাধন করা এবং প্রতিষ্ঠা লাভ করা। মানুষের অন্তর্নিহিত পাশবিক শক্তির বিনাশ সাধনের মাধ্যমে পূত-পবিত্র জীবন গঠনে সহায়তা করে।

সম্মানিত অভিভাবকবৃন্দ,

মনে রাখবেন, কুসমিত প্রসূনের ন্যায় শিশুদের প্রতিভা। প্রতিভার এই সুপ্ততা বিকাশের জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত নিয়ামক সংগৃহীত হয় প্রাথমিক শিক্ষাস্তর থেকেই। কাজেই শিক্ষার এই প্রাথমিক স্তরটি প্রত্যেক অভিভাবক তথা প্রতিটি শিশুর জন্যই সমানভঅবে গুরুত্বপূর্ন। শিশুদের হাতেখড়ি পরিবারে হলেও তাদের শিক্ষা জীবনের মুলভিত্তি প্রাথমিক বিদ্যালয়েই রচিত হয়।

সম্মানিত অভিভাবকবৃন্দ,

শিশুরা অনুকরণ প্রিয়। শিশু অবস্থায় তাদের অগ্রমস্তিস্কের বিশেষ করে সেরেব্রাম এবং থ্যালামাস অংশ তথ্যহীন থাকে। এ সময়ে তাদের যে আদর্শে অনুপ্রাণিত করা হবে, যে পন্থায় বুদ্ধিবৃত্তির পুরচর্যা করা হবে, আমৃত্যু তা তাদের মস্তিস্কে স্থায়িত্ব পাবে।আরও নানাদিক বিবেচনায় শিক্ষা ক্ষেত্রে প্রাথমিক শিক্ষাস্তর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন। শিশুদের প্রাথমিক শিক্ষার এই গুরুত্বপূর্ন দায়িত্ব শিবরাম স্মৃতি প্রি-ক্যাডেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ সব সময় নিবিড় তত্ত্বাবধায়ন এবং সততা, সাহস ও দৃঢ়কার সাথে পালন করে। গতিশীল এই আধুনিক যুগে আপনার সন্তান এক কদমও যাতে পিছিয়ে না থঅকে, সে ব্যাপারে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

সম্মানিত অভিভাবকবৃন্দ,

আমাদের দেশে ১১ ধলনের প্রাথমিক বিদ্যালয় চালু আছে।আমরা জার্মানীতে শুরু হওয়া ফ্রোয়েবল কর্তৃক প্রবর্তিত ‘বিন্ডার গার্টের’ পদ্ধতির অনুকরণে ‘শিবরাম স্মুতি প্রি-ক্যাডেট স্কুল অ্যান্ড কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেছি। শুধু তাই নয়, আমাদের বিদগ্ধ শিক্ষাবিদ সংবলিত দক্ষ পরিচালনা পর্ষদ ও শিক্ষকমন্ডলী এই পদ্ধতির সঙ্গে যুক্ত-বিযুক্ত করেছেন অনেক যুগোপযোগি নিয়ম কানুন। যা অন্যান্য এ ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে “শিবরাম স্মুতি প্রি-ক্যাডেট স্কুল অ্যান্ড কলেজটিকে করেছে ব্যতিক্রম ও স্বতন্ত্র। যা প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তর পেরিয়ে একজন শিক্ষার্থীকে সফলভাবে উচ্চ শিক্ষার নিয়ামক শক্তি হিসেবে প্রেরণা জোগাতে বাধ্য। আমদের এই উদ্যেগ  ইতোমধ্যেই শিক্ষাবিদ ও অভিভাবক মহলে সমাদৃত ও আস্থা অর্জন করেছে।

সম্মানিত অভিভাবকবৃন্দ,

আমরা মনে প্রানে বিশ্বাস করি আজকের কোমল প্রাণ শিশুরাই ভবিষ্যতের দিকপাল। তাদের অন্তলোর্কের ঐশ্বর্যের সন্ধানে আমরা যে মহতি উদ্যোগ গ্রহন করেছি। তার সঙ্গে আপনাদের সার্বক্ষনিক একাত্মতা কামনা করছি।

আল্লাহ হাফেজ

 

 

মোঃ মিজানুর রহমান (মিজান)

           প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক